আসসালামু আলাইকুম

আব্দুর রহমান আল হাসান

মুসলিম, তালিবুল ইলম

যে ব্যক্তি নিজের আমলের উদ্দেশ্যে ইলম অর্জন করে, ইলম তার হৃদয়কে কোমল করে দেয়। আর যে ব্যক্তি মুদাররিস বা টাইটেল ব্যবহারের জন্য কিংবা দাম্ভিকতা প্রদর্শন ও অন্যকে হেয় করার জন্য ইলম অর্জন করে, সে নিজেই নিজেকে ধোঁকা দেয়।  তার এই অহমিকা তাকে ধ্বংস করে দেয়

Abdur Rahman Al Hasan

আব্দুর রহমান আল হাসান

মুসলিম, তালিবুল ইলম

যে ব্যক্তি নিজের আমলের উদ্দেশ্যে ইলম অর্জন করে, ইলম তার হৃদয়কে কোমল করে দেয়। আর যে ব্যক্তি মুদাররিস বা টাইটেল ব্যবহারের জন্য কিংবা দাম্ভিকতা প্রদর্শন ও অন্যকে হেয় করার জন্য ইলম অর্জন করে, সে নিজেই নিজেকে ধোঁকা দেয়।  তার এই অহমিকা তাকে ধ্বংস করে দেয়।

হামাসের টেলিগ্রাম চ্যানেলে নিষেধাজ্ঞা

হামাসের টেলিগ্রাম চ্যানেলে নিষেধাজ্ঞা – বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হলো টেলিগ্রাম। মানুষ এটি পছন্দ করার কারণ হলো, এখানে কমিউনিটি গাইডলাইনের মাইরপ্যাচ নাই। অন্যান্য প্লাটফর্মগুলোতে কাজ করতে গেলে অনেকেই হিমশিম খায়। জায়োনিস্ট, ক্রুসেডারদের বিরুদ্ধে কোনো কিছু গেলেই তারা কমিউনিটি গাইডলাইন দিয়ে চ্যানেল কিংবা আইডি ব্যান করে দেয়। টেলিগ্রামে এমনটা খুব

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

মাদানী ক্যালেন্ডার কী

মাদানী ক্যালেন্ডার – পৃথিবীর শুরুতে এমনকি সাহাবাদের যামানা পর্যন্ত মানুষ কোনো ঘটনাকে মনে রাখার জন্য বড় কোনো যুদ্ধ বা প্রসিদ্ধ কোনো ব্যক্তির মৃত্যুর দিকে সম্মোধন করে তারিখ উল্লেখ করতো। শুরুর যুগে মানুষ আদম আ. এর দুনিয়াতে আগমনের সময়কাল থেকে তারিখ গণনা করতো। পরবর্তীতে নূহ আ. এর প্লাবন থেকে তারিখ গণনা

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

আবু বকরের যুগে উসমান রা.

আবু বকরের যুগে উসমান রা. – ১১ হিজরীতে নবীজি সা. এর ইন্তিকালের পর খলিফা হন হযরত আবু বকর রা.। আবু বকর রা. খেলাফতের দায়িত্ব গ্রহণের পরে তিনি বিজ্ঞ সাহাবীদেরকে মজলিসে শুরার অন্তর্ভুক্ত করেন। হযরত উসমান বিন আফফান রা. ছিলেন আবু বকর রা. এর মজলিসে শুরার অন্যতম একজন সদস্য। আবু বকর

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

উম্মে কুলসুম রা. ও উসমান রা.

হযরত উম্মে কুলসুম রা. ছিলেন রাসূল সা. এর সম্মানিতা কন্যা। প্রথমে তার বিয়ে হয় আবু লাহাবের পুত্রের সাথে। কিন্তু সূরা লাহাব অবতীর্ণ হওয়ার পর সে উম্মে কুলসুমকে তালাক দেয়। হযরত উম্মে কুলসুম রা. এর মূল নাম কি ছিল, তা জানা যায় না। তবে কয়েক ইতিহাসবিদ বর্ণনা করেন যে, তার নাম

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

রাসূলের ইন্তিকালের সময় ওমর ফারুক রাঃ

রাসূলের ইন্তিকালের সময় – নবম হিজরীতে বিদায় হজ্জ্বের পরে রাসূল সা. অসুস্থ হয়ে পড়েন। প্রথম প্রথম এই অসুস্থতাকে স্বাভাবিক কোনো রোগ মনে হলেও কিছুদিন পর প্রকট আকার ধারণ করলো। একটা সময় রাসূল সা. পুরোপুরি অসুস্থ হয়ে পড়েন। তিনি মসজিদে যেতেন কোনো সাহাবীর কাধে ভর দিয়ে। কিছুদিন পর মসজিদে যেতেও সক্ষম

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

নারীর ফাঁদ কতটা ভয়ঙ্কর

নারীর ফাঁদ কতটা ভয়ঙ্কর – সৃষ্টির শুরু থেকেই আল্লাহ নারীদের দুর্বল প্রকৃতিতে সৃষ্টি করেছেন। তাই কখনো কখনো ইচ্ছায় আবার কখনো অনিচ্ছায় তারা পুরুষদেরকে ফিতনার মধ্যে ফেলে দেন। নারীর ফাঁদ ও শয়তানের ফাঁদের মধ্যে নারীঘটিত ফাঁদকেই কুরআন বড় হিসেবে বর্ণনা করেছে। সাধারণত নারীরা বাহ্যিকভাবে কোমল, নাজুক ও অবলা হয়ে থাকে। এর

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

সর্বশেষ প্রকাশিত

মিথ্যা বলার শাস্তি

মিথ্যা বলার শাস্তি – দরসে কুরআনে আজ আমাদের শায়েখ সূরা তূর নিয়ে আলোচনা করছিলেন। কুরআনী তাদাব্বুর তথা বুঝ না থাকার কারণে সারা জীবন এই সূরা কতবার পড়েছি, কিন্তু একবারও অর্থ বুঝি নি। আজ বারবার দরসে বসে মনে হচ্ছিল, আল্লাহ এমন কথা বলেছেন অথচ আমি এই সম্পর্কে অজ্ঞ! এটা চিরসত্য যে, কুরআনী তাদাব্বুর একদিনে তৈরি হয় না। আবার শুধুমাত্র বঙ্গানুবাদ দেখে তেলওয়াত করলেও তাদাব্বুর এতটা অর্জিত হয় না। মূল আরবি থেকে

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

অ্যাপল যেভাবে ইসরাইলকে সমর্থন করছে

অ্যাপল যেভাবে ইসরাইলকে সমর্থন করছে – গেজেটের দুনিয়ায় অ্যাপল একটি টেক জায়ান্ট কোম্পানী। ব্রান্ড ভ্যালু থাকার কারণে অ্যাপলের পণ্য অধিকাংশ মানুষের নিকট খুবই পছন্দনীয়। অ্যাপলের সাথে ইসরাইলের সম্পর্ক কি, তা জানতে হলে আমাদেরকে খানিকটা ইতিহাসের পাতায় প্রথমে চোখ বুলাতে হবে। ইসরাইল রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা ও আরবরা আমরা একটু পেছন থেকে শুরু করি। বিশ্বে জায়োনিস্ট রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার আগেই প্যোলান্ড থেকে দলে দলে ইহুদিরা এসে ফিলিস্তিন ভূমিতে সন্ত্রাসী কার্যক্রম শুরু করে। গুপ্তচরবৃত্তি, গুপ্তহত্যা,

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

প্রাচীনকালে হজ যাত্রা যেমন ছিল

প্রাচীনকালে হজ যাত্রা যেমন ছিল – মুসলমানদের ধর্মীয় ইবাদাতের অন্যতম একটি ইবাদাত হলো পবিত্র হজ্জ। এটি ইসলামের পাঁচটি রোকন বা স্তুম্ভের মধ্যে অন্যতম। প্রতিজন সচ্ছল মুসলমানের জন্য জীবনে একবার হজ্জ করা ফরজ। হজ্জ একটি আবেগের নাম। একটি ভালোবাসার নাম। আল্লাহ সবাইকে হজ্জের আবেগ-ভালোবাসা দেন না। যাদেরকে দেন তাদেরকে যেন ঠেলে দেন। কী পরিমাণ আবেগ তাদের, তা দেখলে সত্যিই বিম্মিত হতে হয়। এখানে আমরা প্রাচীনকালের হজ্জযাত্রার কিছু চিত্র ছবি ও লেখার

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

দিনার ও দিরহাম হিসাব

দিনার ও দিরহাম হিসাব – ইসলামের শুরু থেকেই ‍মুদ্রা হিসেবে কোনো কাগুজে মুদ্রাকে প্রাধান্য না দিয়ে দিনার ও দিরহামকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। এর মূল রহস্য কি? প্রকৃতপক্ষে দিনার ও দিরহাম কখনোই কাগুজে মুদ্রার মতো মূল্যমান এক জায়গায় আঁটকে রাখে না। দিনার ও দিরহাম উভয়টাই স্বর্ণ ও রৌপ্য দ্বারা পরিমাপ করা হয় বিধায় স্বর্ণের সাথে সাথে এর মূল্যমান উঠানামা করতে থাকে। দিরহামের পরিচিতি দিরহাম হল রৌপ্যমুদ্রা। সাধারণত ৩ গ্রাম রূপা দিয়ে

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

কোকাকোলা কেন বয়কট করা উচিৎ

কোকাকোলা কেন বয়কট করা উচিৎ – তুফানুল আকসা শুরু হওয়ার পর থেকেই কোকাকোলা, পেপসি, ম্যাকডোনাল্ডস, স্টারবার্কসহ আরো বিভিন্ন আমরিকান পণ্য বয়কটের ডাক দেওয়া হয় মুসলিমবিশ্ব ও সচেতন বিশ্ববাসীর পক্ষ হতে। বাংলাদেশে কোকাকোলা কোম্পানী প্রায় একচেটিয়াভাবেই ব্যবসা করে যাচ্ছে দশকের পর দশক ধরে। বয়কটের ডাক দেওয়ার পর গত অক্টোবরে বহু দোকান থেকে কোকাকোলা সরিয়ে ফেলা হয়। সচেতন মানুষ এই পানীয় পান করা থেকে বিরত থাকা শুরু করে। তীব্র বয়কটের ফলে গত

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

সপ্তম শ্রেণীর পাঠ্যবইয়ে শরীফার গল্প থাকছে

এনসিটিবি কর্তৃক জানানো হয়, নতুন কারিক্যুলামে সপ্তম শ্রেণীর পাঠ্যবইয়ে শরীফার গল্প নামক সমকামিতা প্রচারকারী গল্পটি থাকছে। গত বছর থেকেই এই গল্পটি ও আরো কিছু লেখা নিয়ে তীব্র সমালোচনা করে শিক্ষিত মানুষেরা ও দেশের গুরুত্বপূর্ণ শিক্ষাবিদ ও আলেমরা। বাদ যাচ্ছে শরীফার গল্প। এই বিষয়ে নিউজ প্রকাশিত হয় ১৭ মে ২০২৪ তারিখে। দেখুন নিচের বাটনগুলোতে। আমাদের মূল লেখাটিও রাখা হলো তাদের কর্মকাণ্ড বুঝার সুবিধার্থে কিন্তু তারা কারো কথা না শুনে একগুঁয়েমি করে

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

সপ্তম শ্রেণীর ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বই পর্যালোচনা

সপ্তম শ্রেণীর ইতিহাস ও সামাজিক বিজ্ঞান বই পর্যালোচনা – ২০২৪ সালের নতুন বই শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে জানুয়ারীর প্রথম দিকেই। বর্তমানে বইটির ক্লাসও ছাত্র-ছাত্রীরা নিয়মিত করছে। বিগত বছরের কিছু সমস্যার কারণে এবার ভেবেছিলাম, হয়তো এই বছর বইটি কলঙ্কমুক্ত থাকবে। নৈতিকতা বিবর্জিত পাঠ্য বইটিতে থাকবে না। আমরা এই বইটি শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত পড়ি। এরপর দেখলাম, অনেক রকম ভুল তথ্য ও বিকৃত তথ্য এই বইটি জুড়ে উল্লেখ করা হয়েছে। তাই

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

বাংলাদেশে সমকামিতা মতাদর্শ বিস্তার

বাংলাদেশে সমকামিতা মতাদর্শ বিস্তার – দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরের সময় থেকেই পৃথিবীতে আস্তে আস্তে নতুন নতুন কিছু ফিতনা আমদানি করা শুরু হয়। যেসব ফিতনা প্রাচীনকালে পৃথিবীতে থাকাবস্থায় স্রষ্টার পক্ষ হতে ধ্বংস নেমে এসেছিল। তারপরও এসব ফিতনা ছড়ানো শুরু হলে এর সাথে সাথে বিভিন্ন রোগ-জীবাণু, ভাইরাসও পৃথিবীতে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে। গত ৯০ দশকের সময়ে আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সংস্থা এবং রোল মডেল ‍দেশগুলো এইডস রোগকে পৃথিবীর জন্য হুমকি স্বরুপ হিসেবে চিহ্নিত করে। এইডস

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

মডারেট চিন্তা ও নোমান আলী

মডারেট চিন্তা ও নোমান আলী খান – মাদ্রাসার সাথে সম্পৃক্ত থেকেও অনেক আগে মাঝেমধ্যে নোমান আলী খান এর লেকচার শুনতাম। শুরুর দিকে উনার দাঈ হিসেবে আলোচনাগুলো তাৎপর্যপূর্ণ ছিল। পরিচিত অনেকের পছন্দের ব্যক্তিত্ব ছিলেন তিনি। তিনিও মডারেট চিন্তাধারা থেকে মুক্ত নন। একটা আয়াত আমার খুব বেশি মনে পড়ছে। সূরা তওবার ৩ আয়াতে আল্লাহ বলেছেন, আল্লাহ ও তাঁর রাসূল কাফেরদের থেকে মুক্ত। এই আয়াতের ব্যাখ্যায় উম্মাহর প্রাণপ্রিয় ব্যক্তি শায়েখ আব্দুল্লাহ আযযাম রহ

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

ট্রান্সজেন্ডার ইস্যুতে শিক্ষক বহিষ্কার

ট্রান্সজেন্ডার ইস্যুতে শিক্ষক বহিষ্কার – সমাজের অন্যতম একটি মারাত্মক ব্যাধি হলো, নিজেকে নিয়ে নিজে সন্দেহে পতিত হওয়া। বিশ্বে সমকামিতার আড়ালে যেই ভাইরাসের প্রকোপ দিন দিন বেড়ে চলেছে, সেটির নামে ট্রান্সজেন্ডার মতবাদ। একজন পুরুষ কোনো প্রমাণ ছাড়াই শুধুমাত্র অগোছালো কিছু চিন্তার কারণে নিজেকে মেয়ে বলে দাবী করছে। আবার একজন নারী কোনো প্রমাণ ছাড়াই নিজেকে পুরুষ বলে দাবী করছে। সৃষ্টির শুরু থেকেই মানুষ দুইভাগে বিভক্ত। ১. পুরুষ ২. নারী। পুরুষ সন্তান জন্ম

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

পর্ন সাইট ব্লক করুন মোবাইলে

পর্ন সাইট ব্লক করুন মোবাইলে – চোখের সামনে মোবাইলটি ধরা আছে। সংযোগ রয়েছে ফাইভ জি ইন্টারনেট বা কয়েক এমবিবিএস এর ওয়াইফাই সংযোগ। ইন্টারনেট আমাদের পৃথিবীর দৈনন্দিন কাজকে অত্যন্ত সহজ করে দেয়। কিন্তু এই ইন্টারনেটেই একটি রয়েছে অন্ধকার জগত। যেই জগতে যে কেউ প্রবেশ করার পর প্রথম প্রথম কান্ডকারখানা দেখে বমি আসলেও একটা সময় তাতে মানুষ আসক্ত হয়ে যাবে। নিষিদ্ধ জিনিসে সকলেরই আগ্রহ। আর তা যদি হয়, একজন যুবক বা যুবতীর

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

শিয়া মতবাদ ও আকীদাগত বিচ্যুতি

শিয়া মতবাদ ও আকীদাগত বিচ্যুতি – শিয়া মতবাদ নিয়ে কলম ধরলে পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা লেখা যাবে। বলা যাবে অনেক কিছু। দিন শেষে তাদেরকে আপনি মুসলিম বলবেন নাকি অমুসলিম বলবেন, তা একান্তই আপনার বিষয়। তবে একটা মূলনীতি হলো, কেউ যদি আল্লাহকে এক বলে স্বীকার না করে এবং নবীজিকে সর্বশেষ বলে স্বীকার না করে তাহলে তাকে কাফের বলা যাবে। এখন যদি এমন কাউকে দেখেন, যে কিনা রাসূলের উপরেও আরো অনেক ব্যক্তিকে স্থান

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

বাংলাদেশে ট্রান্সজেন্ডার মতাদর্শ প্রবেশের চেষ্টা

বাংলাদেশে ট্রান্সজেন্ডার মতাদর্শ প্রবেশের চেষ্টা – ট্রান্সজেন্ডার বা ইচ্ছানুপাতিক জেন্ডার পরিবর্তন। পূর্বে একটা সময় ছিল, যখন মানুষ বিভিন্ন ডাক্তারি থেরাপির মাধ্যমে নিজের লিঙ্গ পরিবর্তন করে ছেলে থেকে মেয়ে বা মেয়ে থেকে ছেলে হতো। কিন্তু সমাজ এখন আরো আপডেট (!)। এখন আর চিকিৎসা লাগে না। কেউ যদি নিজেকে মেয়ে মনে করে বা ছেলে মনে করে তাহলেই সে মেয়ে বা ছেয়ে হয়ে যাবে। সামাজিক এমন অধঃপতন চিন্তাধারা এতদিন ইউরোপ-আমেরিকাতে ছিল। সেই চিন্তাধারা

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

ট্রান্সজেন্ডার আন্দোলনে দুর্বল কারা

ট্রান্সজেন্ডার আন্দোলনে দুর্বল কারা , এটা এক কথায় দেখিয়ে দেওয়ার উপায় নেই। এককালে যারা এর বিরোধিতা করতো আজ দেখা যাচ্ছে, তারা এর পক্ষে সাফাই গাইছে। বাংলাদেশে যত রাজনৈতিক দল আছে, হোক বামপন্থী কিংবা ডানপন্থী, উভয়েরই মূল লক্ষ্য সেক্যুলারিজম। আর সেক্যুলার হতে গিয়েই তারা পশ্চিমাদের মিত্রে পরিণত হয়। পশ্চিমা দুনিয়া হলো, বর্তমান পৃথিবীর সবেচেয়ে পাপিষ্ঠ ভূমি। এমন কোনো পাপ নেই যে, তারা করছে না। আল্লাহ তা’আলা হাজার হাজার বছর আগে লূত

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

খারেজী ও তাদের আকীদা বিশ্বাস

খারেজী কারা এবং তাদের সংজ্ঞা দিতে দিয়ে অনেক আলেম অনেক রকমভাবে তাদের পরিচয় তুলে ধরেছেন। তন্মধ্যে, আবুল হাসান আশআরী রহ.বলেন, যারা চতুর্থ খলিফা আমিরুল মুনিনীন আলী রাঃ এর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছে এবং তার দল ত্যাগ করেছে, তারাই হলো খারেজি। ঈমাম ইবনে হাজাম আন্দালূসী রহ. বলেন, খারেজী বলতে প্রত্যেক এমন সম্প্রদায়কে বুঝায়, যারা চতুর্থ খলিফা আলী রা. এর বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করেছে কিংবা তাদের রায় বা মত গ্রহণ করেছে। তিনি আরো বলেন,

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

জীবন বীমা কি ?

জীবন বীমা কি – কোনো ব্যক্তির যদি এই আশংকা হয়, আমার সন্তানরা ছোট। আর আমারও জীবন হারানোর ভয় আছে, সেই ব্যক্তি বর্তমানে জীবন বীমা করে থাকে। জীবন বীমা করার জন্য উক্ত ব্যক্তি বীমা কোম্পানীর নিকট প্রথমত আবেদন করে। তারপর কোম্পানী একজন অভিজ্ঞ ডাক্তারের মাধ্যমে বীমাকারী ব্যক্তির বডি চেক আপ করায়। এরপর ডাক্তার একটা রিপোর্ট লিখে, ‘আনুমানিক এই ব্যক্তি xyz বছর বাঁচবে’। এরপর উক্ত ব্যক্তি কিস্তিতে বীমা কোম্পানীকে টাকা প্রদান করে

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

প্রকৃত সুখ কী

“সাম্যতা বা সমতা। এটি থাকার মধ্যেই প্রকৃত সুখ রয়েছে” এমনটাই বলে থাকে সমাজতন্ত্রে বিশ্বাসী ভাইয়েরা। সকলেই কেন একরকম নয়, এটা ভেবে অনেকেই আক্ষেপ করেন। কেউ কেউ স্রষ্টার প্রতি অভিযোগও তোলেন যে, কেন আল্লাহ কাউকে গরিব বা কাউকে ধনী বানায়? কেন সকলকে একরকম সম্পদ দেয় না? আল্লাহ তা’আলা সূরা আসরের ১-৩ নং আয়াতে বলেন, وَ الۡعَصۡرِ ۙ  اِنَّ الۡاِنۡسَانَ لَفِیۡ خُسۡرٍ ۙ اِلَّا الَّذِیۡنَ اٰمَنُوۡا وَ عَمِلُوا الصّٰلِحٰتِ وَ تَوَاصَوۡا بِالۡحَقِّ

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

আহনাফ বিন কায়েস – আমার কথাও কুরআনে আছে!

আহনাফ বিন কায়েস নামক একজন আরব সর্দারের কথা বলছি। তিনি ছিলেন একজন বীর যোদ্ধা। তার সাহস ও শৌর্য ছিলো অপরিসীম। তার তলোয়ারে ছিলো লক্ষ যোদ্ধার জোর। ইসলাম গ্রহণ করার পর আল্লাহর নবী (সাঃ)-কে দেখার সৌভাগ্য তার হয়নি, তবে নবীর বহু সাথীকেই তিনি দেখেছেন। এদের মধ্যে হযরত আলীর (রাঃ) প্রতি তার শ্রদ্ধা ছিলো অপরিসীম। একদিন তার সামনে এক ব্যক্তি কোরআনের এই আয়াতটি পড়লেন, لَقَدۡ اَنۡزَلۡنَاۤ اِلَیۡکُمۡ کِتٰبًا فِیۡهِ ذِکۡرُکُمۡ ؕ اَفَلَا

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

জিলহজ মাসের প্রথম ১০ দিনের আমল

জিলহজ মাসের প্রথম ১০ দিনের আমল – ইসলামিক চন্দ্র বছর অনযায়ী জিলহজ মাস হলো সর্বশেষ মাস। এই মাসকে হজের মাস বলেও অবহিত করা হয়। তাই অন্যান্য মাসের তুলনায় এই মাসের আলাদা গুরুত্ব ও ফজিলতও রয়েছে। তাছাড়া এই মাসকে যুদ্ধ-বিদ্রোহ বন্ধ রাখার মাসও বলা হয়। আল্লাহ তা’আলা পবিত্র কুরআনে এই মাসের নির্দিষ্ট কয়েকটি দিনের কসম করেছেন। তাই বুঝা যায়, এই মাসের গুরুত্ব কত বেশি! পবিত্র কুরআনের সূরা ফাজরের ২ নং আয়াতে

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

হস্তমৈথুন একটি মারাত্মক গুনাহ

হস্তমৈথুন একটি মারাত্মক গুনাহ – চারিদিকে শুনশান নিরবতা। গভীর নিস্তব্ধ রাত। পিনপতন নিরবতা বিরাজ করছে। রাতে ঘুম আসছে না। মোবাইল বা কম্পিউটারে রয়েছে হাইস্প্রিড ইন্টারনেট। রাতেরবেলায় নেটের স্প্রিড বেড়ে তিনগুণ হয়ে যায়। ইন্টারনেটের বিশাল জগতে নিজেকে যেন খুবই ক্ষুদ্র মনে হয়। একটি সার্চের মাধ্যমে কত কত তথ্য সামনে চলে আসে। আর এর সাথে পাল্লা দিয়ে আমার জানার পরিধিও বাড়তে থাকে। পাড়ার বখাটে ছেলেটা বা ক্লাসের দুষ্ট ছেলেটার পাল্লায় পড়ে একটা

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

যাকাত হিসাব ২০২৩

যাকাত হিসাব ২০২৩ – যাকাত প্রত্যেক সচ্চল মুসলমানের জন্য ফরজ। যাদের নিকট নেসাব পরিমাণ সম্পদ থাকে, তা হিসাব করে যাকাত দিতে হয়। ২০২৩ সালে আপনি কতুটুকু যাকাত দিবেন, সেটির হিসাব দেখবো আমরা এখানে। যাকাতের রেট নির্ধারণ করা হয় দুইভাবে। ১. সাড়ে ৫২ ভরি রুপা। ২. সাড়ে ৭ ভরি স্বর্ণ। এই দুইটির বর্তমান বাজারমূল্যের সাথে মিলিয়ে আপনাকে যাকাত দিতে হবে। বাংলাদেশ জুয়েলার্স অ্যাসোসিয়েশনের ১৫ অক্টোবর ২০২৩ তারিখের হিসাব মোতাবেক ১ ভরি

পুরো লেখাটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ➥

আরো বিষয়ভিত্তিক লেখা

একটি সওয়াব অর্জন করতে চান?

আপনার আশেপাশে থাকা অসহায় ব্যক্তিদের পাশে দাঁড়ানোর মাধ্যমে সহজেই আপনি আল্লাহর নিকট প্রিয় হতে পারেন। তাদের রিযিকের ব্যবস্থা আল্লাহ আপনার রিযিক থেকেই দিয়ে রেখেছেন। আপনি কি তাদেরকে তাদের ভাগ দিয়েছেন?

Scroll to Top