ওমর রাঃ এর ইসলামের দাওয়াত

ওমর এর ইসলামের দাওয়াত – নবুয়তের ৬ষ্ঠ বছরে হযরত ওমর রাঃ ইসলাম গ্রহণ করেন। তখন তার বয়স ছিল ২৭ বছর। তিনি হামজা রাঃ এর মুসলিম হওয়ার তিনদিন পর ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

ইসলাম গ্রহণের পরবর্তী অবস্থা

ইসলাম ধর্ম গ্রহণের পর হযরত ওমর রা. আবু জাহলের বাড়িতে গেলেন। দরজায় টোকা দেয়ার পর আবু জাহল বের হয়ে বললো,

স্বাগতম খাত্তাবের বেটা! হঠাৎ কি মনে করে এলে?

ওমর রা. তখন বললেন, আমি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি। এ কথা শুনে জাহল বললো, আল্লাহ তোমাকে ধ্বংস করুন। এরপর সে ওমরের মুখের উপর দরজা লাগিয়ে দিল।

কাফেরদের সাথে দ্বন্দ্ব

ওমর রা. মুসলমান হওয়ার পর কুরাইশরা তা জানতো না। ওমর রা. তখন একজনকে জিজ্ঞাসা করলেন, মক্কাবাসীদের মধ্যে কথা ছড়িয়ে দিতে কে বেশি পটু?

লোকেরা তাকে জামিল ইবনে মুআম্মারের নাম বললো। তখন ওমর রা. তার নিকট গেলেন। ওমর তখন তাকে বললেন,

জামিল শোনো, আমি মুসলিম হয়ে গেছি। লোকটি তখন কিছু না বলে উঠে দাঁড়ালো।

তারপর কাপড় টেনেটুনে ঠিক করে কাবার নিকট গিয়ে বলতে লাগলো,

হে কুরাইশগণ! খাত্তাবের বেটা ওমর মুসলমান হয়ে গেছে। সে স্বধর্ম ত্যাগ করেছে। ওমর পাশেই দাঁড়ানো ছিলেন। তিনি তখন বললেন,

সে মিথ্যা বলছে। আমি আল্লাহর প্রতি ও তার রাসূলের প্রতি ঈমান এনেছি।

লোকেরা তখন ওমরের উপর আক্রমণ করে বসলো। ওমর রা. ও পাল্টা আক্রমণ করলেন। ওমর উতবা বিন রাবিয়ার উপর চেপে বসলেন।

তিনি উতবার চোখে খোঁচাতে লাগলেন। এতে উতবা ব্যাথায় কঁকিয়ে উঠলো। তখন লোকেরা ভয়ে উতবার ওমরের নিকট হতে সরে গেল।

ওমর রা. তখন উঠে দাঁড়ালেন। জাহিলিয়্যাতের সময় যাদের সাথে ওমর উঠাবসা করেছেন,

তাদের নিকট গিয়ে হাজির হলেন। তাদেরকে জানালেন ইসলাম গ্রহণের কথা।

ওমর রাঃ এর মুসলিম হওয়ার প্রভাব

ওমর এর ইসলামের দাওয়াত – আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ রা. বলেন, ওমর মুসলিম হওয়ায় আমরা গর্ভবোধ করতাম।

কারণ, তিনি মুসলিম হওয়ার আগ পর্যন্ত আমরা কা’বা ঘর তওয়াফ বা কা’বায় নামাজ পড়তে পারছিলাম না।

এরপর থেকে আমরা কা’বা ঘর তওয়াফ করতাম এবং নামাজ পড়তাম।

তথ্যসুত্র

জীবন ও কর্ম: ওমর রা.। পৃষ্ঠা ৪৮-৫১

আর রাহিকুল মাখতুম। পৃষ্ঠা ১১০-১১৩

বিশেষ দ্রষ্টব্য: আমাদের লেখাগুলো সূচিপত্র অনুযায়ী দেখুন www.subject.arhasan.com এই ওয়েবসাইটে। আমরা কোন প্রকাশনীর বই রেফারেন্স হিসেবে ব্যবহার করি তা জানতে ভিজিট করুন www.arhasan.com/book এই ওয়েবসাইটে। আমাদেরকে গুগল নিউজে ফলো করতে পারেন এই লিংক থেকে। আমাদের ইউটিউব চ্যানেল ভিজিট করুন এই লিংক থেকে। এই লেখার লেখক সম্পর্কে আরো জানুন এই লিংক থেকে

আমি একজন ইসলামিক আলোচক, লেখক। ছোটবেলায় পড়ালেখা করেছি কওমী মাদ্রাসায়। পরবর্তীতে সাইন্স বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষা দিয়ে কৃতিত্বের সাথে পাশ করি। বর্তমানে আমি ডিপ্লোমা ইন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ অধ্যায়নরত। অবসরে আমি বই পড়তে পছন্দ করি। নতুন কিছু শিখতে, নতুন কিছু জানতে ভালোবাসি। আমার ইচ্ছা, ভালো মানুষ হয়ে সমাজকে সৎ কাজের আদেশ ও অসৎ কাজে বিরত রাখার চেষ্টা করা।

https://www.arhasan.com